কাঙ্ক্ষিত ভোর Short Poem

কাঙ্ক্ষিত ভোর

কাঙ্ক্ষিত ভোর
কলমে: অনিষ বসাক

ফিরবো বলেও_আমার হয়নি'তো ফেরা ।
শুধু পথ হেটে চলেছি দূর থেকে দূর অজানায়,
একলা খালি পায়ে,
নতুন কোনো ভোরের ঠিকানায় ।
শিশির ভেজা হিমেল হাওয়ায়,
নব অরুণ আলোর স্নিগ্ধতায়
রিক্ত শরীর সিক্ত করতে
নেই অবকাশ ফিরে তাকাবার।
শুধু আগামী আর আগামীর পথ চলা।
পেরিয়ে এসেছি হাজার মাইল পথ,
শৃঙ্খলের বাঁধন টুটেছি, টুটেছি শপথ,
শুধু এক টুকরো কাঙ্ক্ষিত ভোরের বাসনায়।
কোথায় সেই ভোর ?
আর কত দূর ?
ক্লান্ত চরণ তবু অশান্ত।
দিশাহীন পথ হেঁটে চলেছি হাজার মানুষের ভীড়েও আমি একা___একাকী নির্জনতায়।
মন যখন
উচ্ছল উজ্জল প্রেম তরঙ্গে অভিষিক্ত ,
সহসা নীতিহীন সমীরণে সন্তাপ সংকেত।
নিষেধের নিষ্ঠুর বেড়াজাল আর অভিযোগের দুঃসহ প্রতাপ রুদ্ধ করতে চেয়েছে আমাকে অবিরাম,
পারেনি ___
তবু পারেনি আমাকে থামাতে।
থামেনি আমার দুটি পা,
ভাঙেনি মনের বল।
আরো দৃঢ় করেছি আশা,
নিজেকে বলেছি চল,
সামনে এগিয়ে চল,
ওই তো সম্মুখে মঞ্জিল।
জীবনের ভাঙা আয়নায় মুখ দেখেছি শতবার।
চমকে উঠিনি একবারো__
শুধু আশ্বাস গড়েছি নিজেকে চেনার,
আর
অকারণে অপরাধের শাসন মেনেছি বারবার।
কেবল-মাত্র বিদ্ধ করেছে নিজেকে অন্যের বেহিসেবী বেমানান বিগর্হিত আচরণ।
অসমাপ্ত যাতন গুছিয়ে কাঁধে_এগিয়ে চলেছি।
আঙুলের ফাঁকে এখনো অন্ধকার।
মেঘাচ্ছন্ন পূর্বাকাশে সূর্যোদয়ের সময় হয়নি এখনো।
তবে মিলবে জানি __
অন্ধকার মেঘে লুকিয়ে থাকা সূর্য দেখা দেবে একদিন ,
আনবে আনকোরা নির্মল এক নতুন ভোর,
হেসে উঠবে প্রাণ।
যত যন্ত্রণা দুঃখ ক্লেদ বিলীন হবে,
গাইবে আনন্দের জয় গান।
সেইতো আমার কাঙ্ক্ষিত ভোর ।
আমি দুহাত বাড়িয়ে ডেকে নেবো তাকে,
আর চিৎকার করে বলবো __
এসো হে __
এসো হে নির্মল নবীন প্রভাত,
মম তৃষিত প্রাণে রাখো তব দুটি হাত।
জুড়াও তৃষা মোর ঘুচাও নিশা,
তিমির নিবিড়ে ঘনাও
তব নব অরুণ আলোকসম্পাত।
থাকো তুমি চিরদিন চিরতরে,
আমার এই জীবন জুড়ে,
অমলিন অকপটে বিরাজো
তুমি এই বিশ্ব-বিমোহোন রুপে এ ভুবন চরাচরে।
               ____________

Post a Comment

0 Comments